সৃষ্টি বার্তা

ঝড় তুললেন হার্ডহিটার সাব্বির

অবশেষে স্বরূপে দেখা দিলেন হার্ডহিটার সাব্বির রহমান। কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের হয়ে আজকের ম্যাচের আগ পর্যন্ত তেমন কিছুই করতে পারেন নি তিনি।

আজ সাতটি চার ও দুইটি ছক্কার মাধ্যমে করলেন ৩৯ বলে ৬২ রান। জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে দিয়েছিলেন দলকে তিনি। কিন্তু সাব্বির ফিরে যাওয়ার পর কুমিল্লার প্রয়োজনীয় ৩১ বলে ৫০ রানের সমীকরণ মেলাতে পারেন নি ডেভিড উইজ ও ইয়াসির আলী। কুমিল্লা থেমেছে ১৪৫ রানে।

ঢাকার দেয়া ১৮০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় কুমিল্লা। ওপেনার ভ্যান জিল ও ওয়ান ডাউনে নামা ডেভিড মালান দু’জনই ফিরে যান দলীয় ৩১ রানের মধ্যে। এরপর দলের হাল ধরেন সাব্বির ও সৌম্য। তারা ১০ ওভারে তোলেন ৮২ রান। এরপরই একে একে ফিরে যান সৌম্য, সাব্বির ও ইয়াসির। উইকেট পতনের সাথে সাথে রানের গতিও কমে কুমিল্লার, কাছে এসেও আর জয় ছুঁতে পারল না কুমিল্লা।

এর আগে, মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে শুরুটা ভালো করে খুলনার দুই ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত এবং মেহেদী হাসান মিরাজ। সাত ওভারের মধ্যে অর্ধশত রানের জুটি গড়েন তারা। দুজন উদ্বোধনী জুটিতে তুলে ৭১ রান। চারটি চার ও একটি ছক্কায় ২৯ বলে ৩৮ রান করে সৌম্য সরকারের শিকারে পরিণত হন শান্ত। এরপর রাইলি রুশোর সঙ্গে দলের রান বাড়াচ্ছিলেন মিরাজ। যদিও বেশীক্ষণ টিকতে পারেননি তিনি। ৩৯ বলে ৩৯ রান করে ডেভিড ভিসের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন তিনি।

এরপর মাঠে আসেন দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ম্যাচের বাকি সময় রুশোকে সঙ্গ দেন তিনি। ম্যাচের পুরো সময় কুমিল্লার বোলারদের উপর তাণ্ডব চালান রুশো। তার চার ছক্কার ফুলঝুরিতে আনন্দে মাতে পুরো মিরপুর। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ২ উইকেটের বিনিময়ে ১৭৯ রান তোলে খুলনা।

কুমিল্লার হয়ে একটি করে উইকেট নেন সৌম্য এবং ডেভিড ভিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: সৃষ্টি বার্তা থেকে কপি করা যাবে না।