আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

ত্বক-চুলের যত্নে তেজপাতা

রান্নার স্বাদ ছাড়াও আপনার সৌন্দর্য্য বাড়িয়ে তুলতে উপকারী তেজপাতা,রান্নায় তেজপাতা দেওয়া মানে তার স্বাদ একেবারে বদলে যায়৷ সামান্য রান্নাও সুস্বাদু করে তোলার ক্ষমতা রাখে তেজপাতা৷ তবে তেজপাতার গুণাগুণ আপনার ত্বক এবং চুলের জন্যও উপকারী। চুলের খুসকি থেকে উকুন, ব্রুণ সবেতে মক্ষোম হল এই তেজপাতা৷

ব্রুণ দূর করতে এবং কমাতে সাহায্য করে তেজপাতা৷ ৮-১০ টি তেজপাতা গুঁড়া করে পানির সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন৷ গ্যাসে কম আঁচে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন মিশ্রণটি৷ একটি জায়গায় ঢেকে রেখে দিন৷ তারপর ঠাণ্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন৷ ভালো করে ঠাণ্ডা হওয়া মিশ্রণটি ছেঁকে নিয়ে মুখে লাগান৷ রেখে দেবেন না৷ পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার মতোই এই পানিটি দিয়ে ধুয়ে নিন৷ এক সপ্তাহ এই পদ্ধতিতে মুখ দেওয়ার পরই দেখবেন মুখ পরিষ্কারও হয়েছে এবং ব্রুণের সমস্যাও কমেছে৷

দাঁতের সাদাভাব ফিরিয়ে আনতে উপযোগী হল যে পেস্ট আপনি ব্যবহার করেন তার সঙ্গে তেজপাতার গুঁড়া অল্প করে মিশিয়ে নিন৷ এতে আপনার দাঁতের হলদে ভাব দূর হবে৷ অতি লজ্জ্বার ব্যাপার হল উকুন৷ মাথায় উকুন থাকলে সমস্যা তো বটেই লজ্জাও বটে৷ আগের পদ্ধতির মতোই রসটি তৈরি করে মাথার তালুতে ভালো করে মাসাজ করুন৷ ২-৩ ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন৷ দেখবেন দুইদিনের মধ্যেই উকুন সেরে গেছে৷

উকুনের পাশাপাশি খুশকিও একই রকমভাবে লজ্জাজনক৷ তেজপাতা গুঁড়া করে টকদইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে নিন৷ একটি পেস্ট তৈরি হলে সেই পেস্ট চুলে ভালো করে লাগিয়ে নিন৷ স্ক্যাল্প পর্যন্ত যাতে পেস্টটি পৌঁছায়৷ কিছুক্ষণ পর শ্যাম্পু করে নিন ভালো করে৷ এক সপ্তাহ করার পরই খুশকি দূর হয়ে যাবে৷

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।