আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

যুবদল নেতার লাশ উদ্ধার, পুলিশের দাবি হাতির আক্রমণ

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা যুবদল নেতা আজমল আলী শামীমের (৪৬) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে পুলিশ। এ ঘটনা নিয়ে ওই এলাকায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ রাজনৈতিক অঙ্গনে তোলপাড় চলছে।

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার সাগরনাল চা বাগান এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

হাতির আক্রমণে যুবদল নেতা আজমল আলী শামীমের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ।

নিহত আজমল আলী শামীম কুলাউড়া পৌরশহরের মাগুরার এলাকার বাসিন্দা। সে আমজদ আলীর একমাত্র ছেলে। আজমল উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক।

এ বিষয়ে শামীমের সঙ্গী শাহীন চৌধুরী ও জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, হাতির আক্রমণেই তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার দুদিন আগে ৩টি গাড়ি ভাঙচুর করেছে হাতি। এ সময় হাতির আক্রমণ থেকে বাঁচতে গিয়ে ৫ যাত্রী আহত হন।

পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানায়, আজমল আলী শামীম ও অপর সহযোগী শাহীন চৌধুরী (৪৬) মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে মোটরসাইকেলে কুলাউড়া থেকে ফুলতলা যাচ্ছিলেন। পথে সাগরনাল চা এলাকায় রাস্তায় হাতির আক্রমণের শিকার হন।

শাহীন চৌধুরী জানান, কুলাউড়া শহর থেকে গাজীপুর চা বাগান হয়ে জুড়ী উপজেলার ফুলতলায় যাওয়ার মুহূর্তে সামনে দুটি হাতি দেখতে পান। এ সময় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে হাতি তাদের সামনে চলে আসে। এতে দুজন আত্মরক্ষায় দুদিকে পালিয়ে যান। এর পর থেকে নিখোঁজ হন আজমল আলী শামীম।

বিষয়টি সাগরনাল চা বাগানের শ্রমিকদের ঘটনা জানায় শাহীন চৌধুরী। এরপর সেখান থেকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি সবাইকে জানানো হয়। পরে সকালে শামীমের লাশ রাস্তার পাশ থেকে উদ্ধার করে জুড়ী থানা পুলিশ।

বিষয়টি নিয়ে কুলাউড়া সহযোগী রেঞ্জ অফিসার রিয়াজ উদ্দিন জানান, কুলাউড়া গাজীপুর ফুলতলা সড়কে রাতে জনসাধারণকে সতর্ক হয়ে চলাফেরা করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে আজমল শামীমের মৃত্যু বিষয়েজুড়ী থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, লাশের বুকে ও মাথায় হাতির পায়ের ছাপ রয়েছে। হাতির আক্রমণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি নিশ্চিত করেন। এ ব্যাপারে অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে পাঠানো হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।