আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

ইবিতে বোটানিক্যাল গার্ডেন তৈরী করা হবে

পরিবেশগত ভারসাম্য বজায়ে বিস্তর গবেষণা করতে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ে (ইবি) তৈরী করা হচ্ছে বোটানিক্যাল গার্ডেন। বিশ^বিদ্যালয়ের লেক অঞ্চলের প্রায় ১০ বিঘা জমি জুড়ে তৈরী করা হবে এই গার্ডেন। এতে স্থান পাবে বনজ, ফলজ, ঔষধী ও ভেষজসহ বিভিন্ন ধরনের বৃক্ষ।

শনিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী আলীমুজ্জামান টুটুল বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন সত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিশ^বিদ্যালয়ের লেক পরিদর্শন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, রোজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ^বিদ্যালয়ের (বাকৃবি) উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক মোক্তার হোসেন ও ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের সৈন্দর্য বর্ধন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. জাকারিয়া রহমান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ^বিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম, প্রধান প্রকৌশলী আলীমুজ্জামান টুটুল প্রমুখ।

লেক পরিদর্শনের পর তারা বোটানিক্যাল গার্ডেন তৈরীর পরিকল্পনা চূড়ান্ত করেন। এছাড়া বিশ^বিদ্যালয়ে বোটানিক্যাল গার্ডেনের পাশাপাশি ল্যান্ড স্কেপ গার্ডেনিং করারও সিদ্ধান নেন তারা।

এ বিষয়ে বিশ^বিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী আলীমুজ্জামান টুটুল জানান, বিশ^বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার ও স্মৃতি সৌধের সামনের ফাঁকা স্থানে তৈরী করা হবে ল্যান্ড স্কেপ গার্ডেন। বায়োলজিক্যাল সায়েন্স অনুষদের আওতায় থাকা তিনটি বিভাগ এখানে গবেষণার সুযোগ পাবে। এই গার্ডেন সংরক্ষণে নিরাপত্তা কর্মীদের জন্য তৈরী করা হবে ওয়াচ টাওয়ার।

বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন, ‘বিশ^বিদ্যালয়ের বায়োলজিক্যাল সায়েন্স অনুষদের অধীনে বোটানিক্যাল গার্ডেন পরিচালিত হবে। এই গার্ডেন তৈরীর ফলে পরিবেশে জীব বৈচিত্র আনয়ন ও ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের অধিকক্ষণ উপস্থিতর জন্য সুযোগ সৃষ্টি হবে।’

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।