আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

মাছ ধরা নিষেধ, কিন্তু মাছরাঙাটি…

খুঁটির মাথায় জুড়ে দেয়া ছোট এক ফালি কাঠে তিন শব্দের সতর্কীকরণ নির্দেশনা, ‘মাছ ধরা নিষেধ’। এমন কড়া নির্দেশনা কার জন্য সেটা লেখা নেই। তাই ধরে নেয়া যায়, মানুষ কিংবা পাখি-সবার জন্যই পুকুরের মালিকের এই আইন!

কিন্তু সেই সাইনবোর্ডের ওপরই ঠোঁটে মাছ নিয়ে দাঁড়িয়ে মাছরাঙাটি। তার আয়েশি ভাবটা যেন এমন, এসব নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা সে করে না!

ফেসবুকেই জেনেছি বিরল মুহূর্তের ছবিটি তুলেছেন আলোকচিত্রী ফিরোজ আল সাবাহ। এই আলোকচিত্রির টানা সাত মাস রোজ বিকেলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় লেগেছে ছবিটি তুলতে!

গতবছরের শেষ সময়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিজিটিএন একই ধরণের তিনটি ছবি প্রকাশ করে। যা সারাবিশ্বে তুমুলভাবে সাড়া জাগায়। ফিরোজ আল সাবাহ ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমটির ছবিগুলোর সাথে পার্থক্য হলো, সতর্কীকরণ নির্দেশনায়!

একটিতে লিখা ‘মাছ ধরা নিষেধ’ অন্যগুলোতে ‘নো ফিশিং’। সতর্কীকরণ নির্দেশনা যাই হোক, মাছরাঙা কিন্তু মানতে নারাজ!

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।