ads
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

সিজারের সময় কেটে গেল নবজাতকের মাথা

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০১৯
  • ০ বার পঠিত

সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে সিজারকালে এক নবজাতকের মাথায় চিকিৎসকের ছুরির আঁচড় লাগার অভিযোগ স্বজনদের। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় এ নবজাতককে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে নগরীর নবাব রোডের নিরাময় পলি ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহত নবজাতক সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার শালুটিকরের লামাপাড়া গ্রামের জহিরুল হক ও রাশেদা বেগমের সন্তান। রাশেদা বর্তমানে নিরাময় পলি ক্লিনিকের একটি কেবিনে ভর্তি আছেন। নবজাতকের মামা ও রাশেদা বেগমের ভাই জসিম উদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ডা. শায়লা পারভীন সিজার করেন। সিজার শেষে বাচ্চাকে দেখতে চাইলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নানা টালবাহানা করে।

পরে রাত সোয়া ১১টায় স্বাক্ষর নিয়ে নবজাতককে আমাদের কাছে দিলে দেখতে পাই তার মাথার পেছনের ডান দিক কেটে গেছে। সেখান থেকে রক্ত বের হচ্ছে। তখন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নবজাতকের চিকিৎসার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করতে না পারলে আমরা তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। বর্তমানে সে সেখানেই চিকিৎসাধীন আছে।

তার মাথায় ৯-১০টি সেলাই দেয়া হয়েছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে সিজারিয়ান ডা. শায়লা পারভীন যুগান্তরকে বলেন, রাশেদাকে বাড়িতে স্বাভাবিকভাবে বাচ্চা প্রসবের জন্য ধাত্রির মাধ্যমে চেষ্টা করা হয়। ধাত্রির কথা সিজারিয়ান অপারেশনের সময় রাশেদা নিজে আমাদের বলেছে। হয়তো ধাত্রি বাচ্চা প্রসব করাতে গিয়ে ধারালো কিছু দিয়ে চেষ্টা করেছে। যার জন্য এমনটা হয়েছে। সিজারে কখনও এমন হয় না। তিনি বলেন, মানবিক বিষয় বিবেচনা করে বাচ্চাকে সঙ্গে সঙ্গে ওসমানীতে প্রেরণ করেছি আমার লোক দিয়ে এবং তার খোঁজখবর নিচ্ছি।
নবজাতকের মামা জসিম বলেন, বাড়িতে বাচ্চা প্রসব করানোর কোনো চেষ্টা করা হয়নি। পথে কোনো সমস্যা হলে তাৎক্ষণিক দেখার জন্য একজন ধাত্রি আমরা সঙ্গে করে নিয়ে এসেছি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিজেদের ভুলের দায় এড়াতে মিথ্যার আশ্রয় নিচ্ছে।

সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১২
  • ১২:১৫
  • ১৬:২১
  • ১৮:০৩
  • ১৯:১৭
  • ৬:২৪
ইঞ্জিনিয়ার মোঃ ওয়ালি উল্লাহ
নির্বাহী সম্পাদক
নিউজ রুম :০২-৯০৩১৬৯৮
মোবাইল: 01727535354, 01758-353660
ই-মেইল: editor@sristybarta.com
© Copyright 2023 - SristyBarta.com
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102