আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

নারাযণগঞ্জে ৮ বছরের শিশু ধর্ষিত

নারাযণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে উপজেলার মোগরাপাড়া বাজারে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে মোক্তার হোসেন (৫৫) নামে এক লন্ড্রি দোকানের মালিক তার লন্ড্রির দোকানে ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষন করে। ধর্ষনের পর শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় কম্বল দিয়ে পেঁচিয়ে রাখে। এ সময় শিশুটির ডাক চিৎকার শুনে বাজারে থাকা শারজাহান (৬৫) ও তারামিয়া (৬০) নামে দুই নাইট গার্ড ঘটনাস্থল লন্ড্রির দোকানে সামনে গিয়ে লন্ড্রির দোকানের বাইরে থেকে তালাবদ্ধ করে রাখে। পরে সকালে নাইটগার্ড ও আশেপাশের লোকজন ধর্ষিত শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এদিকে ধর্ষিতা শিশুটির মা ও শিশুটিকে এলাকা থেকে বিতারিত করতে ধর্ষক লন্ড্রি দোকানের মালিক মোক্তার হোসেন ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে প্রভাবশালী মহলের মাধ্যমে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে স্থানীয় এলাকাবাসীসূত্রে জানা গেছে। ধর্ষক মোক্তার হোসেন একই এলাকার দমদমা গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে বলে জানা যায়।

ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় এলাকাবাসী বলেন, ৮ বছরের একটি শিশু কিছু কাপড় নিয়ে লন্ড্রির দোকানে আসলে শিশুটিকে আটকে রেখে ধর্ষন করে লন্ড্রি দোকানের মালিক মোক্তার হোসেন। ঘটনাটি সম্পর্কে বাজারে দায়িত্বে থাকা নাইট গার্ডদের জিজ্ঞাসা করলেই ঘটনার সকল তথ্য পাওয়া যাবে বলে জানান এলাকাবাসী।

এদিকে ধর্ষিতার মা তার কন্যা শিশুকে নিয়ে মোগরাপাড়া এলাকার দমদমা গ্রামের স্থানীয় রবের বাড়ীতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করছিল। তাদের বাড়ি কুমিল্লা জেলায় বলে এলাকাবাসীর মাধ্যমে জানা গেছে।

এব্যাপারে সোনারগাঁও থানার সেকেন্ড অফিসার (এস আই) মাসুদ রানা জানান, এ ব্যাপারে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি, তবে অভিযোগ পেলে তদন্তানুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।