আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :
«» অগ্নিদগ্ধ কলেজছাত্রী ফুলন মারা গেছেন; খুনিদের বিচারের দাবি সৃষ্টি হিউম্যান রাইটস’র «» হিলিতে আমদানি নিষিদ্ধ ভারতীয় এ্যাম্পলসহ আটক ১ «» হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কাস্টমস গোয়েন্দা কর্তৃক ১৩০০০ (তের হাজার) পিস মেমোরি কার্ড আটক «» সখীপুরে বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হয়ে বিদ্যুৎ শ্রমিক সোহেল রানার মৃত্যু «» কুমিল্লায় হোটেলে মিললো ২ বস্তা কনডম, ১৩ পতিতাকে জরিমানা «» অবশেষে বরখাস্ত ডিআইজি মিজান «» ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিতে অস্ট্রেলিয়া «» সৃষ্টি হিউম্যান রাইটস’র চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার অভিযোগ «» সৃষ্টি হিউম্যান রাইটস’র কার্যক্রমে সন্তুষ্ট প্রকাশ করলেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত «» তাজহাটে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সৃষ্টি হিউম্যান রাইটস সোসাইটির প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

টাংগাইলে তরুণীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ১

ছেলেবন্ধুকে বেঁধে রেখে টাঙ্গাইলে এক তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় করা মামলায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

গত ১৪ মার্চ বিকেলে সখিপুর উপজেলার বহেরাতৈল এলাকার একটি মাঠে বসে বন্ধুর সঙ্গে গল্প করছিলো এক তরুণী। এ সময় সাদ্দাম, জালাল, নজরুল ও আফাজ নামে ৪ যুবক তাদের আটক করে। পরে ওই তরুণী ও তার বন্ধুকে জোরপূর্বক পাশের একটি বনে নিয়ে যায় অভিযুক্ত ৪ যুবক।
ছেলেটিকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে তারা। পাশাপাশি ভিডিও ধারণ করা হয়। পরে পালিয়ে যায় চার যুবক। মেয়েটিকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
নির্যাতিতা বলেন, আমাকে ধর্ষণ করেছে ৩ জন। আর ভিডিও করেছেন একজন। আমি এদের ফাঁসি চাই।
প্রাথমিক পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। টাঙ্গাইল সদর হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডা. নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, শারিরীকভাবে পজিটিভ আলামত পাওয়া গেছে।
এ ঘটনায় নির্যাতিতার বাবা বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে সখিপুর থানায় মামলা করেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহাদুজ্জামান মিয়া বলেন, অভিযোগের পর পরই মামলা গ্রহণ করে জালাল নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে ভিডিও উদ্ধার করা হয়েছে।
তবে পলাতক রয়েছে অপর ৩ জন অভিযুক্ত। 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।