আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

জাবিতে “বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নারীর অংশগ্রহণ” বিষয়ক সেমিনার

সাঈদ বিন ইসলাম, জাবি প্রতিনিধি; জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে লোক প্রশাসন বিভাগের আয়োজনে “বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নারীর অংশগ্রহণ” বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

আজ মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান অডিটোরিয়ামের সেমিনার কক্ষে এ সেমিনার শুরু হয়।

সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি,বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রোফেশনালস এর প্রো-ভিসি ও বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সাবেক সদস্য ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ড.আবুল কাশেম মজুমদার,মূল বক্তা ও.এন সিদ্দিকা খানম, সচিব, বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন, বিশেষ অতিথি,অধ্যাপক ড. রাশেদা আক্তার, ডিন ফ্যাকাল্টি অব সোশ্যাল সায়েন্স, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন লোক প্রশাসন বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক ড. জেবউন্নেছা ও সঞ্চালনা করেন লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক আশরাফুল হক।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ, সাংবাদিকগণ ও প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী।
অনুষ্ঠানের শুরুতে অধ্যাপক ড. জেবউন্নেছা অতিথিদের ফুল ও ক্রেস্ট উপহার দিয়ে বরণ করে নেন।
সেমিনারে বক্তব্য রাখেন মূলবক্তা ও.এন. সিদ্দিকা খানম, তিনি বলেন,“অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে নারীদের অংশগ্রহন অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে, নারীরা অতীতের যে কোনো সময় থেকে অনেক সচেতন হয়েছে,সিভিল সার্ভিসে পুরুষদের তুলনায় না্রীরা দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি আরও বলেন,সিভিল সার্ভিসে নারীর সংখ্যা এখনও পুরুষের তুলনায় অনেক কম, শুধু তাই নয় উচ্চপদ গুলো প্রায় নারী শূন্য, তিনি এর জন্য সমাজব্যবস্থা ও নারীর প্রতি বিরূপ মনোভাবকে দায়ী করেন,তিনি আরও বলেন সিভিল সার্ভিসে নারীদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি পেলে এবং নারীরা উচ্চপদ গুলোতে নারীরা গেলে দেশের জন্য ভালো কিছু করতে পারবে এবং দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে পারবে”।
আরো বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. রাশেদা আক্তার, তিনি বলেন,“আমরা একটি পুরুষতান্ত্রিক সমাজে বসবাস করছি

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড.জেবউন্নেছা, তিনি বলেন,“আমি বিভাগীয় প্রধান পদে দায়িত্বরত রয়েছি, নারী হিসেবে আমি কখনও বৈষম্যের শিকার হয়নি, কখনও হতাশ হয়নি, আমার পুরুষ সহকর্মীরা আমাকে অনেক সাহায্য করে, আমি চাই নারীরা সিভিল সার্ভিসে অংশগ্রহণ করুক এবং দেশকে অনেক দূর এগিয়ে যাবে, আমি আশা করি শিক্ষার্থীরা আরও বেশি উৎসাহিত হবে”।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, অধ্যাপক ড. রাশেদা আক্তার, তিনি বলেন,“আমরা পুরুষতান্ত্রিক সমাজে বাস করি,এই সমাজে নারীদেরকে হেয় চোখে দেখা হয়, এমনকি সংসারের সকল দায়িত্ব নারীদের উপর চাপিয়ে দেওয়া হয়,এতে অনেক নারী চাকরি ছাড়তে বাধ্য হয়,এই সংসারের সকল দায়িত্ব নারী ও পুরুষ মিলে ভাগ করে নিলে এই সমস্যা হয় না”।
আরও বক্তব্য রাখেন,অধ্যাপক ড.আবুল কাশেম মজুমদার, তিনি বলেন,“সিভিল সার্ভিসে নারী ও পুরুষ মিলে মিশে কাজ করলে দেশ অনেক দূর এগিয়ে যাবে,তাই নারীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে”।
অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়।
অপরদিকে লোকপ্রশাসন বিভাগের উন্নয়ন ও দরিদ্র শিক্ষার্থীদের জন্য ২ লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়ায় জালাল আহমেদ স্পিনিং মিলসের চেয়ারম্যান সেলিম আহমেদ (সিআইপি) কে লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয়।

অপরদিকে আগামী ২৬ জুলাই লোক প্রশাসন বিভাগের এ্যলামনাই এসোসিয়েশন আয়োজন করার ঘোষণা দেন লোকপ্রশাসন বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক ড.জেবউন্নেছা।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।