আজ-  ,
basic-bank
সংবাদ শিরোনাম :

তিনি একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক কিন্তু ভূয়া

মো: আ: হামিদ টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইল জেলা শহরের কুমুদিনী কলেজ মোড়ে অবস্থিত ‘টাঙ্গাইল ক্লিনিক অ্যান্ড হসপিটাল’ থেকে অধ্যাপক ডা. এফ এম শাহ সেকেন্দার নামে এক ভূয়া চিকিৎসককে আজ(২০ এপ্রিল)গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

গ্রেফতারকৃত আসামী স্বেচ্ছায় দোষ স্বীকার করায় ভ্রাম্যমান আদালত তাকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) দক্ষিণের অফিসার ইনচার্জ শ্যামল কুমার দত্ত পিপিএম জানান, ডিবি’র এস আই মো. ওবায়দুর রহমান, এএসআই মো. জাহাঙ্গীর আলম, কনস্টেবল বাসুদেব, মফিজুর রহমান ও সেলিমের সমন্বয়ে গঠিত একটি চৌকশ দল বিশেষ অভিযান চালিয়ে ‘টাঙ্গাইল ক্লিনিক অ্যান্ড হসপিটাল’ থেকে ভূয়া চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এফএম শাহ সেকেন্দারকে গ্রেফতার করে। তার প্রকৃত নাম মো. শাহ সেকেন্দার। তিনি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ক্যান্টনমেন্ট এলাকার মাটিকাটা গ্রামের (বাসা নং-১৪৩/৪) ওমর আলী ফকিরের ছেলে।

তিনি আরো জানান, ভূয়া চিকিৎসক স্বেচ্ছায় দোষ স্বীকার করায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার মো. রোকনুজ জামানের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমান আদালত মো. শাহ সেকেন্দারকে মেডিকেল এবং ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৯ (১) এবং ২৯ (২) ধারার অপরাধে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।