এবার সেই হাসপাতালে বাবাকে মারধর

ডাক্তারের মারধরের শিকার সেই ছেলের বাবা ও চাচাকে হাসপাতালে ঢুকে এক ইউপি সদস্য মারধর করেছেন।
বুধবার দুপুরে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঘটনাটি ঘটে। পরে তাদের সেখানে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত মো. বাদল উপজেলার কাকচিড়া ইউপির তিন নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য।

আহতরা হলেন- ডাক্তারের হাতে মারধরের শিকার জিলানীর বাবা মো. নাসির ও চাচা আবুল কালাম।

আহত মো. নাসির বলেন, আমার স্ত্রী এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় সকালে আমি ও আমার ভাই তাকে দেখতে আসি। একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরেক রোগীকে দেখতে আসেন আমাদের ইউপি সদস্য মো. বাদল।

বাদলের সঙ্গে তার জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধ আছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ নিয়ে হাসপাতালেই তার সঙ্গে আমার সামান্য বাকবিতণ্ডা হয়। এরপর বাদল তার সহযোগীদের নিয়ে আমাদের মারধর করে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য বাদল মারধরের কথা অস্বীকার করে বলেন, তারাই আমাকে মারধর করে জামা ছিঁড়ে দিয়েছে। আমাকে চরমভাবে অপমানিত করেছে।

এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানার ওসি হানিফ শিকদার বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিভিল সার্জন ডা. মো. হুমায়ুন শাহীন খান বলেন, বিষয়টি দুঃখজনক ও অনাকাঙ্ক্ষিত। এ ঘটনায় তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে হবে।

সোমবার অসুস্থ মাকে ফ্লোর থেকে হাসপাতালের বেডে তোলায় জিলানীকে পেটান বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার আনোয়ার উল্লাহ। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: সৃষ্টি বার্তা থেকে কপি করা যাবে না।
0 Shares
Share via
Copy link
Powered by Social Snap