বাঁচার জন্য জরায়ু কেটে ফেলতে হলো; আনুশকা

শরীর থেকে জরায়ু কেটে ফেলতে হল সেতার শিল্পী আনুশকা শঙ্করের। আনুশকা প্রয়াত সেতার পণ্ডিত রবি শঙ্করের মেয়ে। তার পেটে ১৩টি টিউমার হয়েছিল। দুটি অস্ত্রোপচার করা হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের সেই কষ্টের কথাই তুলে ধরেছেন তিনি।

তিনি লিখেছেন, ‘কিছুদিন আগে চিকিৎসকরা যখন বললেন আমার জরায়ু কেটে বাদ দিতে হবে, এটা শোনার পর আমি মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ি। ভীষণ ভয় করছিল, মনে হয়েছিল এখন তো আমার নারীত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠবে। অনেক ভেবেছি। কাছের বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলেছি। পরে জানলাম আমার মতো অবস্থা আরও অনেকে নারীর।

আনুশকা লিখেছেন, ‘গত মাস থেকে আমার আর জরায়ু নেই। স্ত্রী রোগের ও ক্যান্সারের জন্য দুবার অপারেশন হয় আমার। জরায়ুর টিউমারগুলো বেড়ে যাচ্ছিল। জরায়ুর আকার প্রায় ছয় মাসের গর্ভবতীর মতো হয়ে গিয়েছিল।’

আনুশকা আরও লিখেছেন, ‘২৬ বছর বয়সে বুঝলাম, আমার জরায়ুতে টিউমারের মতো কিছু একটা রয়েছে। এজন্য অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সেটি জরায়ু থেকে কেটে বাদ দেওয়া হয়। পরবর্তীতে দুই সন্তানের মা হয়েছি। সেটা পরে বড় আকার ধারণ করে ১৩টি টিউমার হয়ে যায়। বাঁচার জন্য জরায়ু কেটে ফেলতে হলো গত মাসে।’

উল্লেখ্য, আনুশকা শঙ্কর প্রয়াত সেতার পণ্ডিত রবি শঙ্করের মেয়ে। ব্রিটিশ চলচ্চিত্র নির্মাতা জো রাইটের সঙ্গে ২০১০ সালে ঘর বেঁধেছিলেন তিনি। আট বছর পর তাদের দাম্পত্য জীবন ভেঙে যায়।

আনুশকা এখন দুই সন্তান জুবিন শঙ্কর রাইট ও মোহন শঙ্কর রাইটকে নিয়ে লন্ডনে বসবাস করছেন।
 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

0 Shares
Share via
Copy link
Powered by Social Snap