ads
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন

মুজিববর্ষে মোদিকে আসার জন্য জাফরুল্লাহর তিন শর্ত

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২ মার্চ, ২০২০
  • ০ বার পঠিত

দিল্লিতে সাম্প্রদায়িক সংঘাতের পর মুজিববর্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অংশগ্রহণের বিরোধিতা করছে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এবং সংগঠন। এমনকি মোদির আসা প্রতিহতেরও ঘোষণা দিয়েছে ইসলাম ভিত্তিক দলগুলো। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে মোদিকে অনেক আগেই মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। মোদিকে অনুষ্ঠানের সবচেয়ে সম্মানিত অতিথি উল্লেখ করে তাকে যথাযথ সম্মান দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।

এদিকে বিএনপির পক্ষ থেকে মোদির আগমন নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো বিবৃতি এখনো দেওয়া হয়নি। তবে দলের বেশ কয়েকজন নেতা মোদির আগমনের বিরোধিতা করেছেন।

আজ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মুজিববর্ষে আসার জন্য তিনটি শর্ত বেঁধে দিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও বিএনপি নেতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ শর্ত দেন। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

জাফরুল্লাহ বলেন, আমাদের রাষ্ট্রীয় এক নেতাকে জামিন দেয়া হচ্ছে না, এর কারণ হলো বিচারকরা। বিচারকরা বর্তমানে ফুটবল খেলোয়াড় হয়ে গেছেন। ফুটবল খেলোয়াড়রা দলীয় লেবাস ধরে, বিচারকরা দলীয় লেবাস ধরছেন না তবে দলীয় কাজ করেন। বিচারকদের কাজ সরকারের মনোরঞ্জন করা নয় কিন্তু তারা তাই করছেন।

তিনি বলেন, এই মার্চেই বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন আমি তোমাদের লোক, আমি বাংলাদেশের লোক। আমাদের বর্তমান সরকার বলছে আমরা ভারতের লোক। ভারতকে কৃতজ্ঞতা জানানোর জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী- যার ভারতের নাগরিকত্বের কাগজ নেই সে মোদিকে নিয়ে আসবে। তবে মোদি বাংলাদেশে এলে তাকে তিনটি শর্ত মানতে হবে। তা হলো- ফেলানী ও সীমান্তে মানুষ হত্যার জন্য ক্ষমা চাইতে হবে। ভারতের হাইকমিশনের সামনের রাস্তার নাম হবে ফেলানী রোড। আমরা যে পানির হিস্যা পাচ্ছি না সেই পানি দিতে হবে।

ভারতের বর্তমান সহিংসতার উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ভারতে কী হচ্ছে আমরা জানি। দিল্লিতে কী হচ্ছে আমরা জানি। একটা টুইট লেখার কারণে ভারত থেকে বাংলাদেশের ছাত্রকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে। সেই দেশের প্রধানমন্ত্রী মোদি কী করে মুজিববর্ষে প্রধান অতিথি হতে পারে? এটা হাসিনার পুনর্বিবেচনা করা উচিত। এ বিবেচনা না করলে বঙ্গবন্ধু নিশ্চয়ই কবরে বসে কাঁদবেন। বলবেন এভাবে তাকে অপমান করার অধিকার বাংলাদেশ সরকারের তো নেই, আমাদের নেই।

গণতন্ত্রকে হত্যা করে বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে মুজিববর্ষ পালন যথার্থ হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রবের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুরু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। #পূর্বপশ্চিমবিডি

সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৭
  • ১২:০৮
  • ১৬:৪৩
  • ১৮:৫৩
  • ২০:১৭
  • ৫:১৯
ইঞ্জিনিয়ার মোঃ ওয়ালি উল্লাহ
নির্বাহী সম্পাদক
নিউজ রুম :০২-৯০৩১৬৯৮
মোবাইল: 01727535354, 01758-353660
ই-মেইল: editor@sristybarta.com
© Copyright 2023 - SristyBarta.com
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102