ads
শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ১১:৫০ অপরাহ্ন

খাগড়াছড়িতে বিজিবি ও গ্রামবাসী সংঘর্ষে নিহতদের লাশ দাফন

রিপোর্টারের নাম
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৪ মার্চ, ২০২০
  • ১ বার পঠিত

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় গাছের গুঁড়ি আটক করা নিয়ে মঙ্গলবার বিজিবি সদস্য ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত পাঁচজনের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বুধবার নিজ নিজ গ্রামের বাড়িতে তাদের লাশ দাফন করা হয়।

ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার সকালের দিকে মাটিরাঙ্গার একই পরিবারের তিনজনসহ চারজনের লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার রাতে বিজিবি সদস্য মো. শাওন খানের লাশ বরগুনার বেতাগীতে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

মাটিরাঙ্গার গাজীনগরে সকাল সোয়া ৮টার দিকে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছলে সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। কান্নার রোল ওঠে পুরো এলাকায়। বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ নিহতদের বাড়িতে জড়ো হয়।

মাটিরাঙ্গা থানার ওসি মো. শামসুদ্দিন ভুঁইয়া লাশগুলো হস্তান্তর করেন। এ সময় মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিভীষণ কান্তি দাশ, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মাটিরাঙ্গা সার্কেল) মো. খোরশেদ আলম উপস্থিত ছিলেন।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. এমরান হোসেন জানান, সকাল ৯টার দিকে আলুটিলা বটতলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রথম জানাজা এবং সকাল ১০টার দিকে ইসলামপুর জামে মসজিদ মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে বটতলী কবরস্থানে মো. মফিজ মিয়া এবং ইসলামপুর কবরস্থানে সাহাব মিয়া ও তার দুই ছেলে আকবর আলী ও আহাম্মদ আলীর লাশ দাফন করা হয়। নিহত সাহাব ও মফিজ মিয়া সম্পর্কে বেয়াই।

বুধবার সকালে সাহাবের বাড়িতে দেখা যায় শোকের মাতম। বাবা ও ভাইদের মৃত্যুর খবর শুনে ছুটে আসেন চার বোন মোরশেদা বেগম, আলেয়া বেগম, জুলেখা বেগম ও নিলুফার বেগম। তাদের আহাজারিতে শোকের পরিবেশ তৈরি হয়।

মোরশেদা বেগম জানান, দুই ভাইয়ের চার মেয়ে। মাত্র পাঁচ মাস আগে আহমেদ আলীর একটি মেয়ে হয়েছে।

নিহত আহমেদ আলীর স্ত্রী এবং নিহত মফিজ মিয়ার মেয়ে রুমা আক্তার বলেন, একই ঘটনায় স্বামী, বাবা, শ্বশুর ও ভাসুরকে হারিয়েছে। সংসার চালানোর মতো আমাদের আর কেউ রইল না।

সাহাব মিয়ার স্বজনরা জানান, বিজিবি সদস্যরা কাছ থেকে গুলি করায় সাহাব, আলী আকবর ও আহমেদ আলী ঘটনাস্থলে নিহত হন।

তারা বলেন, তিন সদস্য নিহত হওয়ায় পরিবারটির আর কোনো পুরুষ সদস্য রইল না।

বরগুনার বেতাগী উপজেলার দক্ষিণ বাসন্ডা গ্রামের বাড়িতে বিজিবি সদস্য মো. শাওনের (২৮) নিহত হওয়ার খবর পৌঁছলে পরিবার ও এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

বুধবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে শাওনের লাশ গ্রামের বাড়িতে আনা হয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

জানা গেছে, আট বছর আগে ২০ ব্যাটালিয়ন বিজিবিতে সৈনিক পদে যোগ দেন শাওন। এরপর ৪০ ব্যাটালিয়নে বদলি হয়ে খাগড়াছড়িতে তিনি যোগ দেন। অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক নুরুল ইসলাম ও নাসরিন বেগমের একমাত্র ছেলে শাওন। দুই ভাই-বোনের মধ্যে সে ছোট।

দুই বছর আগে পারিবারিকভাবে বাকেরগঞ্জের নিয়ামতি ইউনিয়নের মারিয়া আক্তারের সঙ্গে শাওনের বিয়ে হয়। ছেলে হারিয়ে মা-বাবা পাগলপ্রায়। ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে পরিবারটি।

এদিকে ঘটনার একদিন পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি। তারা স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেন। গাজীনগর সংলগ্ন বিজিবির চেকপোস্টও তারা পরিদর্শন করেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রেজাউল করিম জানান, বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছি। এ ঘটনায় কেউ লিখিত অভিযোগ দিতে চাইলে শনিবারের মধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে জমা দিতে হবে। আগামী রোববারের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে। #যুগান্তর

সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৪
  • ১২:০৭
  • ১৬:৪৩
  • ১৮:৫৩
  • ২০:১৮
  • ৫:১৮
ইঞ্জিনিয়ার মোঃ ওয়ালি উল্লাহ
নির্বাহী সম্পাদক
নিউজ রুম :০২-৯০৩১৬৯৮
মোবাইল: 01727535354, 01758-353660
ই-মেইল: editor@sristybarta.com
© Copyright 2023 - SristyBarta.com
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102