পঞ্চম দফায় আরো ২,২৫৯ রোহিঙ্গা ভাসানচরে যাচ্ছেন

পঞ্চম দফায় আজ বুধবার ভাসানচরে যাবেন আরো ২ হাজার ২৫৯ রোহিঙ্গা। এর আগে স্বেচ্ছায় ভাসানচর যেতে ইচ্ছুক রোহিঙ্গাদের মঙ্গলবার কক্সবাজারের বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে উখিয়া ডিগ্রি কলেজে এনে, সেখান থেকে ধাপে ধাপে চট্টগ্রামে নেয়া হয়।
অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার সামছু দোজা নয়ন জানান, পঞ্চম দফায় অন্তত ৪ হাজার রোহিঙ্গা ভাসানচর যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তাদের একটি বড় অংশকে ট্রানজিট ক্যাম্প থেকে চট্টগ্রামে নেয়া হয়েছে।

এদিকে, ভাসানচরে পাঠাতে সোমবার রাত থেকেই উখিয়া ডিগ্রী কলেজ এবং ঘুমধুম ট্রানজিট ক্যাম্পে জড়ো করা হয় রোহিঙ্গাদের।

এর আগে, গত ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ দফায় ৪ হাজার রোহিঙ্গাকে নোয়াখালীর ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়। এছাড়া চলতি বছরের ২৯ ও ৩০ জানুয়ারি তৃতীয় দফায় ৩ হাজার ২৪২ জন। তারও আগে ২০২০ সালের ২৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় ১ হাজার ৮০৪ জন এবং ২০২০ সালের ৪ঠা ডিসেম্বর প্রথম দফায় ১ হাজার ৬৪২ জন রোহিঙ্গা ভাসানচরে স্থানান্তরিত হন।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা নির্যাতন শুরু হলে পরের কয়েক মাসে অন্তত আট লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেয়। এর আগেও বিভিন্ন সময়ে আরও কয়েক লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অবস্থান নিয়েছিল। বর্তমানে উখিয়া ও টেকনাফের ৩৪টি আশ্রয়শিবিরে নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ১১ লাখ।

আশ্রিত রোহিঙ্গাদের এদেশে সাময়িক অবস্থান যেন আরো শোভন হয়, সে চেষ্টার কমতি করেনি সরকার। প্রত্যাবাসন না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের পরিকল্পনা নেয় সরকার। তাই তিন হাজার কোটি টাকারও বেশি খরচ করে ভাসানচরে গড়ে তোলা হয় বিশাল আশ্রয়ন প্রকল্প।

ভাসানচর আশ্রয়ন প্রকল্পে ১৪৪০টি ঘর এবং ১২০টি সাইক্লোন সেন্টারে থাকতে পারবেন ১ লাখ ১ হজার ৩৬০ জন রোহিঙ্গা। এখানে রয়েছে চিকিৎসা ও শিশুদের শিক্ষার সুব্যবস্থা।

এছাড়া আশ্রয়শিবিরে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী ও বখাটের উৎপাত বেড়েছে। বেড়েছে খুন, মুক্তিপণের জন্য অপহরণ, ধর্ষণ ও অরাজকতা। রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী দলের মধ্যে গোলাগুলিতে রোহিঙ্গাদের মৃত্যু ঘটছে। সাধারণ রোহিঙ্গারাও অত্যাচার-নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। তাই শান্তিকামী রোহিঙ্গারা ঝুঁকি এড়াতে স্বেচ্ছায় ভাসানচরে যেতে আগ্রহ দেখাচ্ছে, এমনটি মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *