রাজশাহীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ ঘোষণা

করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় রাজশাহীতে অনির্দিষ্টকালের জন্য শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ শনিবার (৩ এপ্রিল) দুপুর থেকে এ ঘোষণা কার্যকর হচ্ছে। এদিকে সরকারের লকডাউনের সাথে সাথেই বন্ধ হচ্ছে উত্তরাঞ্চলের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন ও বিনোদনকেন্দ্রগুলো।

রাজশাহী কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানার সুপারভাইজার শরিফুল ইসলাম জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় রাজশাহী সিটি মেয়রের নির্দেশে চিড়িয়াখানা ও কেন্দ্রীয় উদ্যান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার থেকে বনভোজনসহ সবধরনের অনুষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে। শনিবার দুপুর থেকে সাধারণ দর্শনার্থীদের প্রবেশের উপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এ নির্দেশ বহাল থাকবে।

এদিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে উত্তরাঞ্চলের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনগুলোও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রত্নতত্ত্ব নিদর্শন অধিদপ্তরের উত্তরাঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক নাহিদ সুলতানা জানান, করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় মহাস্থানগড় এবং পাহাড়পুর সেখানকার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আগেই বন্ধ করে রেখেছেন। রোববার সাপ্তাহিক ছুটি। সোমবার থেকে লকডাউন শুরু হওয়ায় সবগুলোই বন্ধ হয়ে যাবে।

তিনি আরো জানান, পরবর্তীতে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এগুলো খোলা হবে। লকডাউন বাড়লে এগুলো বন্ধ থাকবে। লকডাউন শেষে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই কেবল খোলা হবে।

এদিকে শহরের পদ্মানদীর টি-বাঁধের টুরিস্ট স্পট বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে টুরিস্ট পুলিশ রাজশাহী রিজিয়ন। এ নিয়ে শুক্রবার বিকেলে মাইকিং করেছে টুরিস্ট পুলিশ। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় টি-বাঁধ টুরিস্ট স্পট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে বন্ধের সময়সীমা বাড়ানো হতে পারে।

আরো পড়ুন