প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি, গ্রেপ্তার মুক্তিযোদ্ধার সন্তান

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে কটূক্তি ও ব্যাঙ্গাত্বক ছবি পোস্ট করায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) বিকেলে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে দামকুড়া থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত ফিরোজ কবীর (২৪) হরিপুর এলাকার প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী সরকারের ছেলে।

দামকুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ফিরোজ কবীর কয়েকদিন ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি এডিট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিচ্ছিলেন। এসব ছবির সাথে কটূক্তি করে বিভিন্ন কথাও লিখছিলেন। এসব আপত্তিকর ছবি সংবলিত পোস্ট হরিপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য মো. বাদল ও স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাদের নজরে আসে।

এরপর তাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ফিরোজকে প্রাথমিকভাবে ধরে ইউপি কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। এসময় তার মোবাইল ইউপি চেয়ারম্যান ও গ্রামবাসীর সামনে চেক করা হয়। তার মোবাইলে ব্যাঙ্গাত্বক ছবিগুলো পাওয়া যাওয়ায়। এই কারণে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এই ঘটনার বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান বজলে রেজবী আল হাসান মুঞ্জিল বলেন, অভিযুক্ত ফিরোজ কবীর একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পরিবারকে বাড়িও দিয়েছেন। তারপরও ফিরোজের কাছ থেকে এ ধরনের অশালীন ঘৃণ্য কর্মকাণ্ড আশা করিনি।

দামকুড়া থানার ওসি মাহবুব হোসেন বলেন, অভিযুক্ত ফিরোজকে থানা হাজতে রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (৭ এপ্রিল) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *