ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা জানালেন তনুশ্রী

মৃত্যুকে একাধিক বার চোখের সামনে দেখেছেন বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। আজ তাই জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত তার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রত্যেক ক্ষণে আনন্দে বাঁচতে চান তিনি। আর সেটাই করে এসেছেন বলে জানালেন অভিনেত্রী। সঙ্গে জানালেন সেই সব ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা, যার ফলে এই উপলব্ধি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী জানান,
জন্মের পরেই তার বাবা-মাকে সন্তানের সৎকার করার কথা বলেছিলেন চিকিৎসক। সাত মাসের মধ্যে জন্ম হয়েছিল তনুশ্রীর। ‘প্রি-ম্যাচিওর’ ছিলেন তিনি।
দুরূহ প্রকারের জন্ডিস ধরা পড়েছিল তার শরীরে। হাত তুলে নিয়েছিলেন চিকিৎসক। কিন্তু তার পরেও তিনি প্রাণে বেঁচে যান। স্বাস্থ্য ফেরে ধীরে ধীরে।
বড় হবার পর বন্ধুরা মিলে মুম্বইয়ের ট্রেন লাইন পার হতে গিয়েছিলেন পায়ে হেঁটে। ট্রেনে চাপা পড়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। তনুশ্রী জানিয়েছিলেন, কয়েক মুহূর্তের জন্য গোটা জীবনটা আমার চোখের সামনে ভাসছিল। কিন্তু সে যাত্রাতেও বেঁচে যাই। এ ছাড়াও এক বার গুরুতর পথ দুর্ঘটনার মুখোমুখি হয়েছিলেন এ নায়িকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *