সুনামগঞ্জে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলেন মাও

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে একদিনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা-ছেলেসহ তিনজন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে উপজেলার কুবাজপুর গ্রামে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মায়েরও মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের কুবাজপুর গ্রামের কাঁচা রবি দাসের স্ত্রী চানমতি রবি দাস (৪৫), তার ছেলে অরুণ রবি দাস (১১) ও উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের এরালিয়া মোহাম্মদপুর গ্রামের ময়না মিয়া (৬৫)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার কুবাজপুর গ্রামে শনিবার রাতে বিদ্যুতের সার্ভিস লাইনের তার একটি ডুবার পানিতে ছিঁড়ে পড়ে। রোববার সকালে কাঁচা রবি দাসের ছেলে অরুণ রবি দাস জাল নিয়ে বাড়ির পাশের ওই ডোবায় মাছ ধরতে যায়।

এ সময় সে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে চিৎকার দিলে বাড়ির সামনে থাকা তার মা চানমতি দাস ছেলেকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন

এদিকে উপজেলার এরালিয়া মোহাম্মদপুর গ্রামে বসতঘরের বিদ্যুতের সুইচ বোর্ডে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ময়না মিয়া (৭০) নামের এক বৃদ্ধ আজ মারা গেছেন।

উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. নাজমুল সাদাত জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট ৩ জন হাসপাতালে আসার আগেই মারা গেছেন।

জগন্নাথপুর থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী সোমবার জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই ময়না মিয়ার লাশ দাফন করা হয়েছে। অন্যদের ব্যাপারে আমাদের কে কিছু জানানো হয়নি।

আরো পড়ুন