পশ্চিমবঙ্গে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল

করোনাভাইরাস মহামারীতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। তবে পরীক্ষার্থীদের কীভাবে মূল্যায়ন হবে, তা আগামী সাতদিনের মধ্যে ঘোষণা করা হবে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, ইতিমধ্যে একাধিক বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টও সিবিএসই দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে। সেই পরিস্থিতিতে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়ার পথে হাঁটল না পশ্চিমবঙ্গে সরকার। বাতিল হয়ে গেল এবারের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা।

সোমবার নবান্নে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, পড়ুয়া, অভিভাবক ও আমজনতার থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক নিয়ে মতামত চাওয়া হয়েছিল, তাতে ৮৩ শতাংশ মানুষ উচ্চ মাধ্যমিক বাতিলের পক্ষে ছিলেন।

তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকের মতামত গুরুত্বপূর্ণ। এই পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের একটা পর্যবেক্ষণও আছে। বিশেষজ্ঞ কমিটিও বলেছে যে এই সময় পরীক্ষা নেওয়া উচিত নয়। যেহেতু মহামারী চলছে, অনেক স্কুল সেফ হাউস হয়ে গিয়েছে। নানা রকম ব্যাপার আছে। তাই আমরা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নিচ্ছি না।’

তবে কীভাবে মূল্যায়ন কীভাবে হবে, সে বিষয়ে এখনও কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। উচ্চ শিক্ষা সংসদ এবং স্কুলশিক্ষা দফতরের আলোচনার ভিত্তিতে আগামী সাতদিনের মধ্যে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘কিন্তু মূল্যায়ন হবে, সেটা মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, উচ্চ শিক্ষা সংসদ এবং শিক্ষা দফতর একসঙ্গে বসে সেটা দেখে নেবে। বিশেষজ্ঞ কমিটিরও মত আছে। তবে দেখে নিতে হবে, বাচ্চাদের যেন কোনও অসুবিধা না হয়।’

আরো পড়ুন