শেখ কামাল জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পেলেন যারা

শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। আজ শুক্রবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ পুরস্কার দেন।

আর যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমতিক্রমে বিজয়ীদের হাতে সনদ ও ক্রেস্ট তুলে দেন। পুরস্কার বিজয়ী প্রত্যেকে পেয়েছেন এক লাখ টাকা, একটি ক্রেস্ট ও সনদ।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গত বছর থেকে এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। এবার প্রবীণ ক্রীড়া সংগঠক হারুনুর রশীদ আজীবন সম্মাননা পেয়েছেন। ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব বিভাগে লিটন কুমার দাস (ক্রিকেট), আবদুল্লাহ হেল বাকী (শুটিং) ও মোল্লা সাবিরা সুলতানা (ভারোত্তোলন) পুরস্কার পেয়েছেন।

উদীয়মান ক্রীড়াবিদ হয়েছেন দুজন। দিয়া সিদ্দিক (তিরন্দাজ) ও মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম (ক্রিকেট)। ক্রীড়া সংগঠক ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন দুজন। সাইদুর রহমান প্যাটেল ও নাজমা শামীম। ক্রীড়া সাংবাদিক হিসেবে কাশীনাথ বসাক পুরস্কার লাভ করেছেন।

ক্রীড়াবিদ ক্যাটাগরির মাধ্যমে পুরস্কার প্রদান শুরু হয়। ক্রিকেটার লিটন দাস জিম্বাবুয়ে থাকায় তার স্ত্রী দেবশ্রী বিশ্বাস সঞ্চিতা পুরস্কার গ্রহণ করেন। শুটার আব্দুল্লাহ হেল বাকী ও ভারত্তোলক মোল্লা সাবিরা সশরীরে পুরস্কার গ্রহণ করেন।

উদীয়মান ক্রীড়াবিদ ক্যাটাগরিতে ক্রিকেটার শরিফুল ইসলামও জিম্বাবুয়ে অবস্থান করছেন। তার ভাই আশরাফুল ইসলাম পুরস্কার গ্রহণ করেন। সংগঠন হিসেবে সেরার স্বীকৃতি পাওয়া বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে পদক গ্রহণ করেন অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সভাপতি ও সেনাপ্রধান জেনারেল এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ। ১৯৮৬ সাল থেকে দেশের হকিতে পৃষ্ঠপোষকতা করা গ্রিন ডেলটা ইনস্যুরেন্স গ্রহণ করে পৃষ্ঠপোষক পুরস্কার।

চার দশকের বেশি সময় ক্রীড়া সাংবাদিকতা করা কাশীনাথ বসাক পেয়েছেন ক্রীড়া সাংবাদিক ক্যাটাগরির পুরস্কার। আবাহনী ক্রীড়া চক্রের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক হারুনর রশীদ পেয়েছেন আজীবন সম্মাননার পুরস্কার।

আরো পড়ুন