সুদের টাকার জন্য গৃহবধূকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ২

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সুদের টাকা না পেয়ে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় করা মামলায় দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার বিকালে তাড়াশ উপজেলার ঈশ্বরপুর গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- শাহজাদপুর উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের নুকালি গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে শেরালী (৪৮) ও একই গ্রামের লতিফ সরকারের ছেলে ইয়াসিন (৩৫)।

গত সোমবার রাতে গণধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। পরে বুধবার বিকালে ওই নারী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

শুক্রবার সকালে সিরাজগঞ্জ র‌্যাব-১২ এর স্কোয়াড কমান্ডার আবুল হাসেম সবুজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করে শাহজাদপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার রাতে ওই গৃহবধূর স্বামী ট্রাকের হেল্পারির কাজে চলে যান। এ সুযোগে গভীর রাতে শেরালী ও ইয়াসিন মদ পান করে তার বাড়িতে এসে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে থাকেন। একপর্যায়ে ওই নারী ঘর থেকে বাইরে বের হলে তারা তাকে বলে- ‘তোর স্বামীর কাছে ১৬ বছর আগের পাওনা সুদের টাকা পাব’। সেই টাকা না দেয়ায় তাকে সুকালি স্কুল মাঠে বেঁধে রাখা হয়েছে। তুই গিয়ে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে আয়।’ এ সময় তিনি যেতে না চাইলে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গিয়ে গলায় ছুরি ধরে হত্যার ভয় দেখিয়ে ওই স্কুলের নির্জন স্থানে ধর্ষণ করে তারা পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম মৃধা জানান, শুক্রবার দুপুরের পরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরো পড়ুন