নকলায় ধর্ষনের অভিযোগে ইউপি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বহিষ্কার!

অনলাইন ডেস্ক অনলাইন ডেস্ক

সৃষ্টিবার্তা ডটকম

প্রকাশিত: মার্চ ৩, ২০২০

শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুরের নকলায় মো. আব্দুল জলিল রানা নামে এক ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারী তথা স্কুল পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠায় দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

আব্দুল জলিল উপজেলার গনপদ্দী ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তাকে যুবলীগ থেকে সাময়ীক বহিষ্কার করেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দ।

৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নকলা বাজারের সুমাইয়া প্লাজার দ্বিতীয় তলায় উপজেলা যুবলীগের অস্থায়ী কার্যালয়ে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মো. রফিকুল ইসলাম সোহেল, যুগ্ম আহ্বায়ক এফ এম কামরুল আলম রঞ্জু ও মো. রেজাউল করিম রিপন’র যৌথ স্বারিত নিখিল এক পত্রে এ বহিষ্কারের আদেশ দেয়া হয়। লিখিত বহিষ্কার আদেশে বলা হয়- “বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ১নং গনপদ্দী ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল জলিল (রানা) এর বিরুদ্ধে নারীঘটিত অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগে এলাকায় শতশত লোক বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে।

এতে দলের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয় বিধায় মো. আব্দুল জলিল রানাকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।” এসময় উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সকল সদস্যবৃন্দ ও স্থানীয় সাংবাদিরা উপস্থিত ছিলেন। এবিষয়ে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মো. রফিকুল ইসলাম সোহেল বলেন, সংগঠনের শৃঙ্খলা পরিপন্থি কর্মকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে উপজেলা আহবায়ক কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক আব্দুল জলিলকে সংগঠন থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে জেলা ও কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে বিষয়টি লিখিত ভাবে অবগত করা হবে বলে তিনি জানান।

এবিষয়ে অভিযুক্ত জলিল বলেন- আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করে ধর্ষনের মিথ্যা অভিযোগ এনে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তাছাড়া সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবে তাকে হেয় করা হচ্ছে বলে তিনি দাবী করেন। অ

পরদিকে, কথিত ধর্ষিতা শিক্ষার্থীর পরিবারের সদস্যরা আব্দুল জলিলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে সুষ্ঠু বিচার প্রার্থনা করে নকলা থানার ওসি বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন।

এষিয়ে নকলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন শাহ জানান, লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাতেই অভিযুক্ত আব্দুল জলিলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।