‘হোম কোয়ারেন্টাইন’ পালনের সঠিক নিয়মাবলী : করোনা

প্রকাশিত: মার্চ ১৯, ২০২০

আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যবিধি ‘আইএইচআর-২০০৫’ এর আর্টিকেল ৩২ অনুযায়ী, যেসব দেশে প্রাণঘাতী ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে, সেসব দেশ থেকে আসা যাত্রীরা, যাদের শরীরে বর্তমানে সংক্রমণের কোন উপসর্গ দেখা যায়নি, পরবর্তী ১৪ দিনের জন্য তাদের কোয়ারেন্টাইন পালন করা অতি আবশ্যক।

হোম  কোয়ারেন্টাইন চলাকালে অত্যাবশ্যকীয়ভাবে নিজ বাড়িতে থাকতে হবে।

আলো বাতাসের সুব্যবস্থা সম্পন্ন আলাদা ঘরে থাকতে হবে এবং অন্যান্য সদস্যদের থেকে আলাদাভাবে থাকতে হবে। সেটি সম্ভব না হলে অন্যদের থেকে অন্তত ৩ ফুট দূরে থাকুন এবং ঘুমানোর জন্য পৃথক বিছানা ব্যবহার করুন।

সম্ভব হলে আলাদা গোসলখানা এবং টয়লেট ব্যবহার করুন। আপনার সাথে কোন পশু-পাখি রাখা যাবে না। মাস্ক পরে থাকাকালীন সেটি হাত দিয়ে ধরা থেকে বিরত থাকতে হবে। মাস্ক ব্যবহারের সময় সেটি সর্দি, থুতু, কাশি, বমির সংস্পর্শে এলে সঙ্গে সঙ্গে মাস্ক খুলে ফেলুন এবং নতুন মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। মাস্ক ব্যবহারের পর ঢাকনাযুক্ত ময়লার পাত্রে ফেলুন এবং সাবান দিয়ে ভাল ভাবে হাত ধুয়ে নিতে হবে। থালা, গ্লাস, কাপ, তোয়ালে, বিছানার চাদর অন্য কারো সাথে ভাগাভাগি করে ব্যবহার করা যাবে না । কোয়ারেন্টাইনে আছেন এমন ব্যক্তির সাথে কোনো অতিথিকে দেখা করতে দেয়া যাবে না।

পরিবারের সদস্যরা কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে বা তার ঘরে ঢুকলে, খাবার তৈরির আগে-পরে এবং খাদ্য গ্রহণের আগে অবশ্যই সাবান-পানি দিয়ে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধুয়ে নিতে হবে।

হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তির নোংরা কাপড় একটি লন্ড্রি ব্যাগে আলাদা রাখতে হবে। মলমূত্র বা নোংরা লাগা কাপড় ঝাঁকাবেন না এবং নিজের শরীর বা কাপড়ে যেন না লাগে তা খেয়াল করতে হবে। ঘরের মেঝে, আসবাবপত্রের সকল পৃষ্ঠতল, টয়লেট ও বাথরুম প্রতিদিন অন্তত একবার পরিষ্কার করতে হবে। পরিষ্কারের জন্য ১ লিটার পানির মধ্যে ২০ গ্রাম ব্লিচিং পাউডার মিশিয়ে দ্রবণ তৈরি করুন ও ঐ দ্রবণ দিয়ে উক্ত সকল স্থান ভালোভাবে মুছে ফেলতে হবে।

সূত্র- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও আইইডিসিআর