রাজধানীর শ্যামপুরে পানির ট্যাঙ্কে শিশুর মরদেহ

রাজধানীর শ্যামপুরের করিমউল্লাহবাগের একটি বাড়ির ছাদের পানির ট্যাংক থেকে অজ্ঞাতপরিচয়ের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ট্যাঙ্কের পানিতে দুর্গন্ধের কারণ খুঁজতে গিয়ে তিন বছর বয়সী এ মৃত শিশুকে দেখতে পায় ভবনের বাসিন্দারা। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানায় শ্যামপুর থানা পুলিশ।

অপরাধী শনাক্তে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

শ্যামপুরের করিম উল্লাহবাগের তিনতলা ভবনটির বাসিন্দারা দুদিন ধরে ট্যাপের পানিতে দুর্গন্ধ পাচ্ছিলেন। পানির রংয়েও পরিবর্তন দেখতে পান তারা। খবর পেয়ে বাড়ির মালিক ভাড়াটিয়া জলিলকে দিয়ে ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করতে গিয়ে দেখতে পায় ছেলে শিশুর মরদেহ। বছর তিনেকের মতো বয়স হবে শিশুটির।

ভবন মালিক জানান, বাড়ির পানির ট্যাঙ্কের তালা নষ্ট ছিল দীর্ঘদিন ধরে। ইট দিয়ে মুখটি চাপা দিয়ে রাখতেন তিনি। তবে ছাদের দরজা সবসময় খোলা থাকতো। নিচে কলাপসিবল গেইট থাকলেও নেই কোন দারোয়ান।

শিশুটির মরদেহ বিভৎস ও পঁচে যাওয়ায় চেনা যাচ্ছিল না। এলাকার লোকজনও কেউ শিশুটিকে চিনতে পারেনি।

ডিএমপির শ্যামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা -ওসি মফিজুল আলম বলেন, শিশুটি মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে দু’তিন দিন আগের পুরানো।

গত দুদিনে থানায় কোন নিখোঁজের জিডি হয়নি বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *